রুকনি ক্লাস্টারের কমিউনিটি ফেস্টিভেল অর্থাৎ সম্প্রদায় উৎসব অনুষ্ঠিত

Date:

যুব দর্পণ ডিজিটাল, ১৪ এপ্রিল ২০২২ :: 

গত ১২’ই এপ্রিল কাছাড় জেলার নরসিংপুর প্রাথমিক শিক্ষা খন্ডের অন্তর্গত রুকনি ক্লাস্টারের কমিউনিটি ফেস্টিভেল অর্থাৎ সম্প্রদায় উৎসব পালন করা হয়। সকালবেলা ছাত্র-ছাত্রী ও শিক্ষা বিভাগের কর্মকর্তাদের নিয়ে এক শোভাযাত্রা বের হয় পালংঘাটের রাস্তায়। অনুষ্ঠানে নানান সম্প্রদায়ের নাচ গান এর সমাহারে দারুন ভাবে ফুটে উঠেছিল অনুষ্ঠানের প্রাঙ্গণ। পালংঘাট সি.সি.জে.সি. হায়ার সেকেন্ডারি স্কুলে এই অনুষ্ঠানটি অনুষ্ঠিত হয়। প্রথমে প্রদীপ প্রজ্জ্বলনের মাধ্যমে অনুষ্ঠানের সূচনা হয়। ঐ স্কুলেরই অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষক দিলীপ কুমার সিংহের হাত ধরে প্রদীপ প্রজ্জ্বলন এর পালা শুরু হয়। তারপর ওই ক্লাস্টারের সি.আর.সি.সি. কমলেন্দু দে এক অসাধারণ বক্তব্য রাখেন। তিনি বলেন আজ আসাম সরকারের জন্যই এই সুন্দর অনুষ্ঠানটি আমরা পরিচালনা করতে পারছি। তিনি আসাম সরকারকে অসংখ্য ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেছেন। তারপর নরসিংপুর শিক্ষা খন্ডের ব্লক অফিসার অজয় চৌহানের অসাধারণ বক্তব্যে মঞ্চটি আরো প্রস্ফুটিত হয়ে ওঠে।

উৎসবে মুখ্য অথিতি ছিলেন আসামের পরিবেশ বন ও মৎস্য বিভাগের মন্ত্রী পরিমল শুক্লবৈদ্য। তিনি ভাষণে বলেন এখানে নানা ভাষা ও সংস্কৃতির যে সমাহার ঘটেছে এটাই আমাদের সমাজের আসল চেহারা। সবাইকে নিয়ে অসম, সবাইকে নিয়েই ভারতবর্ষ ।নানা জাতি এবং মতের মিলনই হল আমাদের আসল পরিচয়। মন্ত্রীর বক্তব্যে ও অনুষ্ঠানটি মুখরিত হয়ে উঠে। অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন এস.এম. ডি. সি. ‘র চেয়ারম্যান কৃষ্ণ জীবন দেবনাথ। বাংলা ভাষা উন্নয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান রুপম সাহা, উপস্থিত ছিলেন স্কুলের অধ্যক্ষ আনোয়ার উদ্দিন, শশাঙ্ক পাল, দীনেশ রবিদাস, রাজনারায়ণ লস্কর, সাধন রঞ্জন বড়ভূইয়া , শশাঙ্ক শীল বিভাস দেব প্রমূখ।

অনুষ্ঠানের বিশেষ অতিথিদের কে পুষ্পমাল্য, উত্তরীয় এবং পুষ্পস্তবক দিয়ে বরণ করা হয়
অনুষ্ঠান পরিচালনায় ছিলেন শিক্ষক প্রদ্যুৎ বর্ধন। অনুষ্ঠানের শুরুতে উদ্বোধনী সংগীত “মধুরও ধ্বনি বাজে” গানটি এক অন্য মাত্রায় স্থান নিয়েছিল । পরিবেশনায় ছিলেন ওই ক্লাস্টারের শিক্ষিকা শিল্পী দেব, জয়া ভট্টাচার্যী, নবনীতা দাস দত্ত সহ আরো অনেকে। নানান বাদ্যযন্ত্রে ভরপুর ছিল গোটা মঞ্চ। তারপর একে একে ছাত্র-ছাত্রীদের নৃত্য পরিবেশন হয়।

এতে ভিন্ন সংস্কৃতির চমক দেখা যায়,নামগুলো না বললেই না হয়… যেমন- রবীন্দ্রনৃত্য, মনিপুরী নৃত্য, ডিমাসা নৃত্য, ঝুমুর নৃত্য, দেশাত্মবোধক নৃত্য, বিহু নৃত্য, কালীনাচ, পদ্মপুরাণ, কোরান পাঠ, মার্শাল আর্ট, কমফু প্রদর্শনী, লুপ্তপ্রায় গ্রামীন লোকশিল্প আই গান ও পরিবেশন করে তাতে একদল ছাত্র, ধামাইল, চড়ক পূজার নাচ ইত্যাদি। ছাত্র-ছাত্রীরা আবৃত্তি এবং গজল ও পরিবেশন করেছিল অসাধারণ ভঙ্গিমায়। অনুষ্ঠানে শিক্ষক মতিলাল রায় এবং তার দল ও ওঝা নৃত্য ও সংগীত পরিবেশন করে সবাইকে মুগ্ধ করেন। নানা ভাষা এবং সংস্কৃতির সমাহারে উৎসবটি আলোকিত হয়ে উঠেছিল।

ওই দিনের অনুষ্ঠানের আরও একটি বিশেষ আকর্ষণ ছিল, ওই ক্লাস্টারের শিক্ষিকা শিল্পী দেব এবং শিক্ষক সানি গোস্বামী, দু’জনের অসাধারণ লোকসঙ্গীতের প্রতিভা না বললে অনেকটাই যেন না বলা থেকে যাবে। অনুষ্ঠানের আরেকটি দারুন উপস্থাপনা ছিল, সেটি হল ওই ক্লাস্টারের ই অনেক শিক্ষক-শিক্ষিকারা নানান পরম্পরাগত খাবার সামগ্রী নিজের হাতে তৈরি করে নিয়ে এসেছিলেন, ” যেগুলো ঐ দিনের এক্সিবিশন হলে সাঁজিয়ে রাখা হয়েছিল এবং তাছাড়া ও ভিন্ন ভিন্ন স্কুলের হাতে তৈরি ক্রাফট দিয়ে ও এক্সিবিশন হলটিকে খুব সুন্দর ভাবে সাঁজিয়ে রাখা হয়েছিল। গোটা হলটির তত্ত্বাবধানে ছিলেন শিক্ষক উত্তম দেবনাথ।
খুব সুন্দর এবং সুষ্ঠভাবে সম্পূর্ণ অনুষ্ঠানটি পরিচালিত হয় এবং সর্বশেষে সকল শিক্ষক-শিক্ষিকা এবং ছাত্রছাত্রীরা মিলে এক অসাধারণ ধামাইল নৃত্য পরিবেশন করেন। ছাত্র-ছাত্রীদের কে উৎসাহ প্রদানের জন্য পুরস্কার বিতরণ করে এক সাফল্যমন্ডিত অনুষ্ঠানের সমাপ্তি হয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Share post:

Popular

More like this
Related

বিশ্ব পরিবেশ দিবস উপলক্ষে হাইলাকান্দি জয় ঠাকুর সেবা সমিতির বৃক্ষমেলা।

যুব দর্পণ প্রতিবেদন, হাইলাকান্দি, ৮ জুন: বিশ্ব পরিবেশ দিবস...

হাইলাকান্দি উইমেন্স কলেজে বিশ্ব পরিবেশ দিবস উদযাপন।

যুব দর্পণ প্রতিবেদন, হাইলাকান্দি, ৮ জুন: গত ৫ ও...

হোপ ফর জেম্স সোসাইটি আয়োজিত “বরাক আইকনিক অ্যাওয়ার্ড ২০২২”।

যুব দর্পণ প্রতিবেদন, শিলচর, ১৮ মে: বরাক উপত্যকা ভিত্তিক...
%d bloggers like this: